বুধবার, মে ২৯, ২০২৪
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * আমরা যুদ্ধ চাই না, শান্তি চাই: শেখ হাসিনা   * ডিএনএ পরীক্ষার জন্য কলকাতা যাচ্ছেন আজিমের কন্যা ডরিন   * নিউইয়র্কের রাস্তায় দেশের পতাকা হাতে মৌসুমী   * বিদেশে বেনজীর ও স্ত্রী-সন্তানদের সম্পদ আছে কিনা খোঁজ নিচ্ছে দুদক   * আজিজ, বেনজীর ও জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী বাহিনী নিয়ে যা বলছে যুক্তরাষ্ট্র   * নিউ ইয়র্কে সেরা পুলিশ অফিসারের একজন বাংলাদেশি অর্পণ সিনহা, কুড়াচ্ছেন প্রশংসা   * আনোয়ারুল আজিম আনারকে নিয়ে ঘন ঘন প্রেস ব্রিফিং বন্ধে লিগ্যাল নোটিশ   * পানির দাম ১০ শতাংশ বাড়ালো ঢাকা ওয়াসা   * বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কে কৌশলগত পরিবর্তনের ইঙ্গিত   * সুষ্ঠু ও মনোরম পরিবেশে জনগণ ভোট দিচ্ছে: নিক্সন চৌধুরী  

   অপরাধ-দূর্নীতি
আরইবি’র পিবিএস-৪ দরপত্রে একই ব্যাক্তির একাধিক প্রতিষ্ঠান ॥ অংশগ্রহণ করতে পারেনি দেশের অন্য কেউ
  Date : 31-03-2024
Share Button

এসকে মিল্টন:

অন্য কোনো প্রতিষ্ঠানকে সুযোগ না দিয়ে আরইবি’র পিএিস-৪ কেরানীগঞ্জ প্রকল্পের টেন্ডারে একই ব্যক্তির একাধীক প্রতিষ্ঠানকে অংশগ্রহণ দেখিয়ে দরপত্রটি গত ২১শে জুন তারিখে বিট কার্যক্রম শেষ করতে যাওয়ায় তুমুল বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। টেন্ডারটির মেমো নম্বর- ২৭.১২.০০০০.২৩৩.০৩.০০১.২৩.১৮ যার তারিখ ১৯.১০.২০২৩ এবং প্যাকেজ UGDN-W-03 & UGDN-W-04 । এধরনের বৈষম্যমূলক কর্মকান্ড আরইবিকে স্বেচাছাচারী ও চরম র্দূনীতিগ্রস্ত প্রতিষ্ঠানে পরিনত করছে যা সরকারের ভাবমূর্তি চরমভাবে নষ্ট করে চলেছে বলে মনে করছে অভিজ্ঞমহল ।

তথ্যমতে, টার্নকি বেসিজ কন্টাক্টটে কেরাণীগঞ্জ ইপিসি প্রকল্পে আন্ডারগ্রাউন্ড ক্যাবল, ট্রান্সফারমার, আরএমইউ এবং রিলেডেট একসেসরিজ যা মাটি খোড়া থেকে শুরু করে ডিজাইন, সাপ্লাই, কেরিং, ইনস্টলেশন, টেস্টিং এন্ড কমিশনিংয়ের জন্য গত ২১শে জুন তারিখে দরপত্র ওপেন করে আরইবি। যেখানে বিডা হিসেবে একই ঠিকানা অবস্থিত এজেডএম শফিউদ্দিনের মালিকানাধীন টিএস ট্্রান্সফারমার, এসকিউ ট্রেডিং এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং নামক কোম্পানির অংশগ্রহণ দেখানো রয়েছে। জানাগেছে, তিন নম্বর বিডার হিসেবে এদেরই কোনো নির্ভযোগ্য ব্যাক্তিকে প্রপ্রাইটর করা গ্লোবাল মার্কেটিং সার্ভিসেস নামক একটি কোম্পানিকে দেখানো রয়েছে যেটা পূর্ব পরিকল্পিত এবং ছক করে দেখানো।  

অন্য কোনো প্রতিষ্ঠানকে সুযোগ না দিয়ে যোগসাজস করে একই ব্যাক্তির প্রতিষ্ঠানকে দরপত্রে কাজ দেওয়াকে আরইবির চরম সীমালঙ্ঘন বলে মনে করছেন অন্য সরবরাহকারীরা। এরফলে এই দরপত্রে সর্বনিম্ন দরদাতার প্রতিফলন না ঘটে সরকারের বিশাল পরিমাণ অর্থ অপচয় ও দুর্নীতির কবলে পড়েতে যাচ্ছে। 

অন্য একটি সূত্র থেকে যানা যায়, এই প্রকল্পে মালামাল সরবরাহ দেবার ক্ষেত্রে দেশের শীর্ষ পর্যায়ের উৎপাদনকারী ও সরবরাহকারীরা আগ্রহী হলেও তাদের জানানো হয়েছে এখানে ইউরোপ, আমেরিকা, অষ্ট্রেলিয়ার মালামাল ব্যবহৃত হবে। এই নিয়ম পরিবর্তন করে সবাই যেনো অংশগ্রহণ করতে পারে এজন্য সংশ্লিষ্ঠ প্রজেক্ট কর্তৃপক্ষকে বিভিন্ন কোম্পানি ডকুমেন্ট সংশোধন ও পরিবর্তন করার জন্য লিখিতভাবে অনেই আবেদন করলেও এক্ষেত্রে এর কোনো পরিবর্তন হবেনা বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। আরইবি দেশের এক বিশেষ ব্যাক্তির প্রতিষ্ঠানকে কাজ দিতে এবং দরপত্রে শুধু এদেরই একাধিক প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণ দেখানোর নাটকীয়তায় অবাক হয়েছে সংশ্লিষ্ঠ সবাই। 

বিজ্ঞমহল মনে করছেন, আরইবি’র দরপত্রে এধরনের বিতর্কিত বিষয় খতিয়ে দেখে এর সাথে জড়িতদের স্বাস্তির আওতায় আনা জরুরি। না হলে এধরনের জালিয়তি, দুনীতি কর্মকান্ড হতেই থাকবে। যার ফলে সরকার ক্রমাগত বিশাল আর্থিক লোকসান ও ক্ষতির কবলে পড়তে থাকবে।     

পিবিএস-৪ প্রজেক্টের ডিরেক্টর গোলাম রাব্বানীকে বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, এই প্রজেক্টে এখোনো কাউকে সিলেক্ট করা হয়নি। প্রথম দিকের একাধিক বিডার হিসেবে দেখানো প্রতিষ্ঠানের মালিকানা একই ব্যাক্তির যিনি কোনোটার ম্যানেজিং ডিরেক্টর, চেয়ারম্যান, পার্টনার বা পরোক্ষ মালিক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, প্রথম তিনটি ছাড়া আরো দুটো কোম্পানির নাম রয়েছে। এই প্রকল্পে একজন বিশেষ ব্যাক্তির প্রতিষ্ঠানকে কাজ দিতে জোগসাজস করে বিডার দেখানোর অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমাদের এই প্রকল্পে এখোনো কাউকে সিলেশন করা হয়নি। এভাবে বিডার করায় সর্বনিম্ন দরদাতার প্রতিফলন হয়নি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমরা এখানো প্রাইজ নির্ধারণ করিনি। এই প্রকল্পে অষ্ট্রেলিয়া, আমেরিকা, ইউরোপের প্রডাক্ট ব্যবহার করা হবে যার বিপরীতে  দেশের শীর্ষ প্রতিষ্ঠানের কেউ কেউ সবার অংশগ্রহণের স্বার্থে ডকুমেন্ট পরিবর্তনের আবেদন করেছিলো প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কে আবেদন করেছিলো তার নাম বলেন। গোলাম রব্বানী বলেন, আমি আপনার সব প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবো না। তথ্য জানতে লিখিত আবেদন করুন।       



  
  সর্বশেষ
আমরা যুদ্ধ চাই না, শান্তি চাই: শেখ হাসিনা
ডিএনএ পরীক্ষার জন্য কলকাতা যাচ্ছেন আজিমের কন্যা ডরিন
বিদেশে বেনজীর ও স্ত্রী-সন্তানদের সম্পদ আছে কিনা খোঁজ নিচ্ছে দুদক
আজিজ, বেনজীর ও জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী বাহিনী নিয়ে যা বলছে যুক্তরাষ্ট্র

প্রধান সম্পাদক: এনায়েত ফেরদৌস , অনলাইন সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত ) কামরুজ্জামান মিল্টন |
নির্বাহী সম্পাদক: এস এম আবুল হাসান
সম্পাদক জাকির হোসেন কর্তৃক ২ আরকে মিশন রোড ঢাকা ১২০৩ থেকে প্রকাশিত ও বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস ২১৯ ফকিরাপুল, মতিঝিল ঢাকা ১০০০ থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ২/২, ইডেন কমপ্লেক্স (৪র্থ তলা) সার্কুলার রোড, ঢাকা ১০০০। ফোন: ০১৭২৭২০৮১৩৮, ০১৪০২০৩৮১৮৭ , ০১৫৫৮০১১২৭৫, ই-মেইল:bortomandin@gmail.com