বুধবার, মে ২৯, ২০২৪
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * আমরা যুদ্ধ চাই না, শান্তি চাই: শেখ হাসিনা   * ডিএনএ পরীক্ষার জন্য কলকাতা যাচ্ছেন আজিমের কন্যা ডরিন   * নিউইয়র্কের রাস্তায় দেশের পতাকা হাতে মৌসুমী   * বিদেশে বেনজীর ও স্ত্রী-সন্তানদের সম্পদ আছে কিনা খোঁজ নিচ্ছে দুদক   * আজিজ, বেনজীর ও জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী বাহিনী নিয়ে যা বলছে যুক্তরাষ্ট্র   * নিউ ইয়র্কে সেরা পুলিশ অফিসারের একজন বাংলাদেশি অর্পণ সিনহা, কুড়াচ্ছেন প্রশংসা   * আনোয়ারুল আজিম আনারকে নিয়ে ঘন ঘন প্রেস ব্রিফিং বন্ধে লিগ্যাল নোটিশ   * পানির দাম ১০ শতাংশ বাড়ালো ঢাকা ওয়াসা   * বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কে কৌশলগত পরিবর্তনের ইঙ্গিত   * সুষ্ঠু ও মনোরম পরিবেশে জনগণ ভোট দিচ্ছে: নিক্সন চৌধুরী  

   অপরাধ-দূর্নীতি
ব্যবসায়ে ধান্ধাবাজ সিন্ডিকেট অবৈধ সম্পদের খোঁজে দুদক
  Date : 30-03-2023
Share Button



নিজস্ব প্রতিবেদক
সিন্ডিকেট করে রমজানে ভোগ্যপণ্যের দাম বাড়িয়ে অবৈধ সম্পদের মালিক হওয়া ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আগ্রহ দেখিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এ ছাড়া কালোবাজারির বিরুদ্ধে মাঠে নামা সরকারি সংস্থাগুলোকেও সহায়তা দিতে চায় তারা। গতকাল বুধবার নিজের দপ্তরে কয়েকজন সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব আগ্রহ প্রকাশ করেছেন দুদক কমিশনার (অনুসন্ধান) মো. মোজাম্মেল হক খান। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির মধ্যে রমজান শুরুর পর আরও বেড়েছে জিনিসপত্রের দাম। মাছ, মাংস, দুধ, ডিম কেনার সক্ষমতা হারিয়েছে বহু মানুষ। এ ছাড়া বিভিন্ন শাক-সবজি ছাড়াও অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বেড়েছে। এমন পরিস্থিতিতে দুদক কমিশনার মোজাম্মেল হক খান বলেন, ‘বাজারে দ্রব্যের দাম বাড়িয়ে মানুষকে হয়রানি করা এক ধরনের দুর্নীতি। কিন্তু আমাদের তফসিলে তা সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ নেই।’ এরপরও এই বিষয়ে কাজ করতে দুদক বিভিন্ন বিষয় খতিয়ে দেখছে বলে জানান তিনি।
দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরসহ অন্য দায়িত্বশীল সংস্থাগুলো কাজ করছে বলে জানান দুদক কমিশনার মোজাম্মেল হক। তিনি বলেন, ‘আমরাও দেখছি, দাম বাড়িয়ে দেওয়ার কারণে সাধারণ মানুষ ভোগান্তির শিকার হচ্ছে, মানুষের কষ্ট হচ্ছে। এখন যে কোনোভাবে আমরা যুক্ত হয়ে দুর্নীতি প্রতিরোধের অংশ হিসেবে কাজ করতে চাই। সিন্ডিকেট ও কালোবাজারির মাধ্যমে অবৈধ সম্পদ অর্জনকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে কিনা জানতে চাইলে দুদক কমিশনার বলেন, ‘বৈধ অর্থের অতিরিক্ত কারও যদি সম্পদ থাকে সেটার দেখাশোনা করার দায়িত্ব দুর্নীতি দমন কমশনের ওপর পড়ে। আমরা যদি এ ধরনের তথ্য পাই, তাদের পরিচয়-ঠিকানা যদি পাই তা হলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেব। মোজাম্মেল হক খান বলেন, ‘মানুষের ভোগান্তি-কষ্ট রোধ করা উদ্দেশ্যে আইন যাদের অনুমোদন দেয়, তাদের পাশে দাঁড়িয়ে আমরা কাজ করতে পারি কিনা তা দেখছি। যদি অন্যান্য সংস্থা আমাদের সঙ্গে কাজ করতে চায় আইনের ব্যত্যয় না ঘটলে সেই বিষয়ে কাজ করা হবে।’ এ বিষয়ে সরাসরি মামলা না করা গেলেও দুর্নীতি দমনে দুদকের প্রতিরোধমূলক কাজের অংশ হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে বলে জানান তিনি।



  
  সর্বশেষ
আমরা যুদ্ধ চাই না, শান্তি চাই: শেখ হাসিনা
ডিএনএ পরীক্ষার জন্য কলকাতা যাচ্ছেন আজিমের কন্যা ডরিন
বিদেশে বেনজীর ও স্ত্রী-সন্তানদের সম্পদ আছে কিনা খোঁজ নিচ্ছে দুদক
আজিজ, বেনজীর ও জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী বাহিনী নিয়ে যা বলছে যুক্তরাষ্ট্র

প্রধান সম্পাদক: এনায়েত ফেরদৌস , অনলাইন সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত ) কামরুজ্জামান মিল্টন |
নির্বাহী সম্পাদক: এস এম আবুল হাসান
সম্পাদক জাকির হোসেন কর্তৃক ২ আরকে মিশন রোড ঢাকা ১২০৩ থেকে প্রকাশিত ও বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস ২১৯ ফকিরাপুল, মতিঝিল ঢাকা ১০০০ থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ২/২, ইডেন কমপ্লেক্স (৪র্থ তলা) সার্কুলার রোড, ঢাকা ১০০০। ফোন: ০১৭২৭২০৮১৩৮, ০১৪০২০৩৮১৮৭ , ০১৫৫৮০১১২৭৫, ই-মেইল:bortomandin@gmail.com