সোমবার, জুলাই ২২, ২০২৪
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * সায়েন্সল্যাবে সংঘর্ষে আহত ১১ জন ঢাকা মেডিকেলে   * সাধারণ শিক্ষার্থীসহ ছাত্রলীগের ওপর হামলার তীব্র নিন্দা: কাদের   * আন্দোলনকারীদের ধাওয়ায় পিছু হটলো পুলিশ-ছাত্রলীগ   * ঢাবি ছাত্রলীগে পদত্যাগের হিড়িক   * শনিরআখড়ায় শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ, তীব্র যানজট   * কোটা আন্দোলকারীদের ওপর হামলা বুধবার সারাদেশে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল   * সায়েন্সল্যাব মোড়ে কলেজ শিক্ষার্থীদের অবরোধ, যান চলাচল বন্ধ   * বাড্ডায় ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ   * জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট হাসপাতাল না কসাই খানা !   * ‘এক সপ্তাহে ৭০০ টাকা দিছে মালিক, সংসার তো চলে না  

   আন্তর্জাতিক
বাংলাদেশ থেকে ভারতে ১০ কেজি সোনা পাচারের চেষ্টা, আটক ৭
  Date : 06-07-2024
Share Button

অনলাইন ডেস্ক

ভারত-বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক সীমান্ত থেকে প্রায় ১০ কিলোগ্রাম সোনা উদ্ধার করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) এবং কলকাতার রাজস্ব গোয়েন্দা অধিদপ্তর (ডিআরআই)। সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলায় ৬৮ ব্যাটালিয়ানের বিএসএফ জওয়ান ও কলকাতা রাজস্ব গোয়েন্দা অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা যৌথ অভিযান চালিয়ে সাত সন্দেহভাজনকে আটক করেন।

এসময় তাদের কাছ থেকে ৯ দশমিক ৫৭ কেজি সোনা উদ্ধার করা হয়, যার বাজারমূল্য প্রায় ৬ কোটি ৮৬ লাখ রুপি। এছাড়াও, নগদ ১১ লাখ ৫৮ হাজার রুপিসহ সোনা চোরাচালানে ব্যবহৃত একটি মারুতি গাড়িও জব্দ করেছে যৌথ বাহিনী।

বিএসএফ জানায়, গত বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) কলকাতার রাজস্ব গোয়েন্দা অধিদপ্তরের (ডিআরআই) সদস্যরা ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সঙ্গে একটি সোনা চোরাচালানের গোপন তথ্য শেয়ার করেন।

সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে যৌথ বাহিনীর সদস্যরা ১১ নম্বর জাতীয় সড়কে তল্লাশি অভিযান শুরু করেন। বিকেল ৫টা ৩০ মিনিট নাগাদ তারা একটি সন্দেহভাজন মারুতি ইকো গাড়ি থামান এবং ভেতরে থাকা সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের শনাক্ত করে গাড়িটিতে তল্লাশি চালান। এসময় ৪ দশমিক ৮ কেজি সোনাসহ দুই অভিযুক্তকে আটক করা হয়।

এরপর আরও দুটি বাস থামিয়ে তল্লাশি চালায় যৌথ বাহিনী। এর একটি বাস থেকে যথাক্রমে ১ দশমিক ২ কেজি এবং অপরটি থেকে ৩ দশমিক ৬২ কেজি সোনা উদ্ধার করা হয়। এসব সোনা পাচারে জড়ি অভিযোগে আটক করা হয় চারজনকে।

অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদ করে তাদের কাছ থেকে আরও এক চোরাকারবারির খবর জানতে পারে যৌথ বাহিনী। সেই খবরের ভিত্তিতে করিমপুরের রামনগর গ্রামে একটি বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে একটি সোনার বিস্কুটসহ নগদ ১১ লাখ ৫৮ হাজার ৫০০ রুপি উদ্ধার করা হয় এবং এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়।

এই ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত রফিক মণ্ডলের বাড়ি নদীয়া জেলার টেপুরে। বাকিদের মধ্যে লাল, রবি, প্রদীপ, দাউদ, সীমান্ত এবং বিট্টু নদীয়ার বাসিন্দা।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রফিক জানিয়েছেন, তিনি দীর্ঘদিন ধরে সোনা চোরচালানে জড়িত। এবার কৃষ্ণনগরে একজন অজ্ঞাত ব্যক্তির কাছে সোনার চালান পৌঁছে দিতে যাচ্ছিলেন। এর বিনিময়ে তিন হাজার রুপি পেতেন তিনি। কিন্তু তার আগেই বিএসএফের হাতে ধরা পড়ে যান।

এর আগে, ২০২২ সালে ১৬টি সোনার বিস্কুটসহ রফিক মণ্ডলকে গ্রেফতার করা হয়েছিল, যার মামলা এখনো চলছে।

অন্য অভিযুক্তরা জানিয়েছেন, করিমপুরের সীমান্ত এলাকা থেকে সোনা নিয়ে কলকাতার দমদম রেলস্টেশনে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের হাতে তুলে দিলে তাদের দুই থেকে পাঁচ হাজার রুপি দেওয়া হতো।

উদ্ধার সোনা এবং ধৃত অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ডিআরআই কলকাতার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।



  
  সর্বশেষ
ইমারত নির্মাণ ‘বিধি’ লঙ্ঘনের মহোৎসব ! রাজউকে’র সংশ্লিষ্টদের পোয়াবারো
পিতৃত্বকালীন ছুটি চেয়ে ছয় মাস বয়সী শিশু ও তার মায়ের রিট
মতিউর পরিবারকে আয় বহির্ভূত সম্পদের হিসাব বিবরণী জমা দিতে নোটিশ
ইসলামী ব্যাংকের রেমিট্যান্স উৎসব

প্রধান সম্পাদক: এনায়েত ফেরদৌস , অনলাইন সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত ) কামরুজ্জামান মিল্টন |
নির্বাহী সম্পাদক: এস এম আবুল হাসান
সম্পাদক জাকির হোসেন কর্তৃক ২ আরকে মিশন রোড ঢাকা ১২০৩ থেকে প্রকাশিত ও বিসমিল্লাহ প্রিন্টিং প্রেস ২১৯ ফকিরাপুল, মতিঝিল ঢাকা ১০০০ থেকে মুদ্রিত। সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ২/২, ইডেন কমপ্লেক্স (৪র্থ তলা) সার্কুলার রোড, ঢাকা ১০০০। ফোন: ০১৭২৭২০৮১৩৮, ০১৪০২০৩৮১৮৭ , ০১৫৫৮০১১২৭৫, ই-মেইল:bortomandin@gmail.com